ঢাকাSunday , 17 January 2021
  1. অপরাধ-দূনীর্তি
  2. আইন-আদালত
  3. আর্ন্তজাতিক
  4. কৃষি ও অর্থনীতি
  5. খেলাধুলা
  6. চিকিৎসা
  7. জাতীয়
  8. দেশজুড়ে
  9. ধর্ম
  10. বিনোদন
  11. মতামত
  12. রাজনীতি
  13. লাইফস্টাইল
  14. শিক্ষা
  15. সম্পাদকীয়

ওসি আবু জিহাদ চুয়াডাঙ্গা জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত – JN7

NAYAN AHMMED
January 17, 2021 4:39 pm
Link Copied!

এম.এ.আর.নয়ন/এম.এইচ.সম্রাট ।। চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নির্বাচিত হয়েছেন। জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হওয়ায় রবিবার (১৭ই জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার সময় চুয়াডাঙ্গা পুলিশ লাইন ড্রিলশেডে অনুষ্ঠিত মাসিক কল্যাণ সভায় আনুষ্ঠানিকভাবে তার হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও নগদ অর্থ পুরস্কার হিসেবে তুলে দেন জেলার মানবিক পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম। গত নভেম্বর/ডিসেম্বর-২০২০ মাসের সার্বিক কর্মক্ষমতা বিবেচনা করে তাকে এই পুরস্কারে ভূষিত করা হয়। এছাড়া মাসিক কল্যাণ সভায় টানা ৬ষ্ঠ বারের মতো থানা/ফাঁড়ি পর্যায়ে জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার নির্বাচিত হয়েছেন দর্শনা থানার এএসআই মহিউদ্দিন।

কল্যাণ সভায় পুলিশের পেশাদারিত্বের মান ও পরিমাণ বিবেচনায় ১৩জনকে ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও নগদ অর্থ পুরস্কার এবং কাজের মান সন্তোষজনক না হওয়ায় ১২জনকে তিরস্কার প্রদান করা হয়। চুয়াডাঙ্গা জেলার পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত কল্যাণ সভায় সকল থানার অফিসার ইনচার্জ, ফাঁড়ির সমূহের ইনচার্জসহ জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। পরবর্তীতে পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষেে মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য, আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান সদর থানায় ওসি হিসেবে যোগদানের পর থেকে অত্র থানাধীন এলাকাসমূহে মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা, সামাজিক ও মানবিক কাজে বিশেষ অবদান রাখাসহ আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন। পেশাদার কাজের বাইরে যেয়ে তিনি একাধিক ভাঙা সংসার জোড়া লাগিয়েছেন। উদ্ধার করে প্রকৃত ব্যবহারকারীর কাছে ফিরিয়ে দিয়েছেন হারিয়ে যাওয়া মোবাইল ফোন। এছাড়া একাধিক অসহায় ব্যক্তিকে আর্থিক সহযোগিতা করার পাশাপাশি তাদের হাতে তুলে দিয়েছেন উপহার সামগ্রী।

পুরস্কার অর্জনের পর অনুভূতি জানতে চাইলে আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান বলেন, “জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হতে পেরে আমি নিজেকে গর্বিত মনে করছি। এই পুরস্কার অর্জনের ফলে আমার দায়িত্ব-কর্তব্য আগের চেয়ে আরও কয়েকগুণ বেড়ে গেলো। আমি শুকরিয়া আদায় করছি মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দরবারে, সেইসাথে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি জেলার মানবিক পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম স্যারের নিকট। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি থানার সকল পুলিশ সদস্যদের। আশা করছি সদর থানা এলাকায় বসবাসকারী সর্বশ্রেণি-পেশার মানুষের সহযোগিতায় থানা এলাকার সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সবসময় নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবো”।