ঢাকাTuesday , 12 January 2021
  1. অপরাধ-দূনীর্তি
  2. আইন-আদালত
  3. আর্ন্তজাতিক
  4. কৃষি ও অর্থনীতি
  5. খেলাধুলা
  6. চিকিৎসা
  7. জাতীয়
  8. দেশজুড়ে
  9. ধর্ম
  10. বিনোদন
  11. মতামত
  12. রাজনীতি
  13. লাইফস্টাইল
  14. শিক্ষা
  15. সম্পাদকীয়

কোটচাঁদপুরে ইউপি চেয়ারম্যান আঃ হান্নান এর বিরুদ্ধে সরকারি রাস্তার ইট বিক্রির অভিযোগ

NAYAN AHMMED
January 12, 2021 3:23 pm
Link Copied!

সোহেল চৌধুরী, ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার কুশনা ইউনিয়নের ইকড়া গ্রামে সরকারি রাস্তার পুরাতন ইট বিক্রি করে দিয়েছেন ইউপি চেয়ারম্যান আঃ হান্নান এর নির্দেশে স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতা আবু বকর ও হাফিজুর রহমান। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তুমুল বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। খবর পেয়ে কোটচাঁদপুর উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ বিক্রিত ইট উদ্ধার করেছে। গ্রামবাসির অভিযোগ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু বকর ও তার সহযোগী হাফিজুর রহমান নতুন রাস্তার কাজ শুরু হওয়ার আগেই রাস্তার পুরাতন ইট ৮ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেন।

ইকড়া গ্রামের জনৈক খলিলুর রহমানের কাছে। সাংবাদিক মহল ইট বিক্রয় এর বিষয়ে আবুবকর ও হাফিজুর এর নিকট জানতে চাইলে তিনারা বলেন চেয়ারম্যান সাহেবের নির্দেশে আমরা ইট বিক্রি করেছি ৮ হাজার টাকায়। ইট বিক্রয় এর অভিযোগের বিষয়টি নিয়ে কুশনা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নানকে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন ইট বিক্রি করে রাস্তার কাজের জন্য বালু এবং মুজরি খরজ দেব। , ইকড়া গ্রামে নতুন মসজিদ সংলগ্ন একটি রাস্তার কাজ শুরু হয়েছে। ৩৫০ ফিটের এই প্রকল্পের বরাদ্দ দেড় লাখ টাকা।সাংবাদিক মহল চেয়ারম্যান এর নিকট জানতে চাই পুরাতন ইট বিক্রি করে বালি এবং মুজুরি দিবেন তাহলে বরাদ্দের টাকা কি করবেন। এমন প্রশ্নের জবাবে চেয়ারম্যান বলেন আপনারা নিজেদের লোক ওখান থেকে ফিরে আসেন সাক্ষাতে কথা বলি। এছাড়াও বলেন, গ্রামে রাজনৈতিক গ্রুপিংয়ের কারণে এক পক্ষ সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ দিয়ে বিষয়টি ফেসবুকে দিয়ে ভাইরাল করে। সাংবাদিক মহল ইট বিক্রয় এর বিষয়টি কোটচাঁদপুর উপজেলা প্রশাসনকে জানান।

ইট বিক্রয়ের সংবাদ পেয়ে সোমবারই বিকালে এই ইট উদ্ধার করতে উপজেলা প্রশাসন কোটচাঁদপুর মডেল থানার ওসিকে নির্দেশ দেন। ওসি মাহাবুবুর রহমান,গুড়পাড়া ফাঁড়ি ইনচার্জ এস আই ডাবলুকে নির্দেশ দিয়ে বিক্রিত ইট উদ্ধার করেন। এদিকে গ্রামবাসীর অভিযোগ, রাস্তা বাড়ানোর জন্য নয়, ইট বিক্রি করে আত্মসাৎ করার জন্যই চেয়ারম্যান এর নির্দেশে, আবু বকর ও হাফিজ চেষ্টা চালায়। এখন তাদের বাঁচানোর জন্য চেয়ারম্যান নানা ফন্দি করছেন। গ্রামবাসি জানায় রাস্তার বহু ইট বিক্রি করা হলেও উদ্ধার দেখানো হয়েছে কম।

বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বর আনোয়ার হোসেন জানান, তিনি ঘটনাটি লোকমুখে শুনেছেন। সেই ইট প্রশাসনের লোকজন আসার আগেই অনেকগুলো ইট সরিয়ে ফেলেছে। এ বিষয়ে কোটচাঁদপুর উপজেলা প্রকৌশলী রুহুল ইসলাম জানান, রাস্তাটি এলজিইডির হলেও কাজটি আমরা করছি না। তাই এ বিষয়ে বলতে পারবো না।