ঢাকাSaturday , 5 December 2020
  1. অপরাধ-দূনীর্তি
  2. আইন-আদালত
  3. আর্ন্তজাতিক
  4. কৃষি ও অর্থনীতি
  5. খেলাধুলা
  6. চিকিৎসা
  7. জাতীয়
  8. দেশজুড়ে
  9. ধর্ম
  10. বিনোদন
  11. মতামত
  12. রাজনীতি
  13. লাইফস্টাইল
  14. শিক্ষা
  15. সম্পাদকীয়

কোটচাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদপ্রার্থী মীর কাশেম আলী জনপ্রিয়তার শীর্ষে – JN7

NAYAN AHMMED
December 5, 2020 4:28 pm
Link Copied!


সোহেল চৌধুরী, ঝিনাইদহ:


ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন মেয়র পদপ্রার্থী মীর কাশেম আলী। জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকা কোটচাঁদপুরের সন্তান মীর কাশেম আলী ১৯৮৬ সাল থেকে আওয়ামী লীগ করে আসছেন। তিনি অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, যুবলীগের সভাপতি ও যুবলীগের আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে জননেতায় রুপান্তরিত এবং সর্বাধিক আলোচনায় উঠে এসেছেন।

মীর কাশেম আলীকে পৌর মেয়র পদে আঃলীগের প্রার্থী হিসেবে দেখতে চান সাধারণ মানুষ। আঃলীগের রাজনীতিতে নিবেদিত প্রাণ, তৃনমূল নেতাকর্মীদের আস্থার প্রতীক তিনি। পৌর মেয়র প্রার্থী হিসেবে তিনি দীর্ঘদিন ধরে গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রতিটি এলাকায় তার পোস্টার, ফেস্টুন, ব্যানার শোভা পাচ্ছে।

কোটচাঁদপুর আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করেছেন তিনি।

মীর কাশেম আলী, মানবসেবার এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। তিনি এলাকায় একজন ক্লিন ইমেজের মানুষ হিসেবে পরিচিত। তিনি তার এলাকায় দলীয় লোকজন ছাড়াও শিক্ষক, ছাত্র, যুবক, আলেম, ব্যবসায়ী, সুশীল সমাজ, জেলে, হিন্দু সম্প্রদায়, সাধারণ মানুষসহ সবার কাছে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তি। সব মানুষের কাজ করে থাকেন তিনি। কেউ তার কাছ থেকে বিমুখ হয়ে যায় না । তিনি জনসেবায় দীর্ঘদিন ধরে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন। ফলে আগামী পৌর নির্বাচনে তিনি নৌকা প্রতীক পেলে খুব সহজেই বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন বলে মনে করেন এলাকার জনগণ।

এ বিষয়ে কথা বললে মীর কাশেম আলী বলেন, দারিদ্রমুক্ত,মাদকমুক্ত, দুর্নীতিমুক্ত এবং সন্ত্রাসমুক্ত সমাজ গঠন করাই আমার লক্ষ্য। রাজনীতি আমার পেশা নয়, নেশা। তাই মানুষের জন্য কাজ করতে চাই, মানুষের ভালবাসা অর্জন করতে চাই। আমাকে আপনাদের পাশে থাকার জায়গা দিলে, সারা জীবন মানুষের পাশে থেকে গণমানুষের জন্য কাজ করব এবং একটি ডিজিটাল পৌরসভা হিসেবে গড়ে তুলব ইনশাআল্লাহ।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর রুপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়ন করার জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাব। আমি কথায় নয়, কাজে বিশ্বাসী হতে চাই। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।