ঢাকাSunday , 7 February 2021
  1. অপরাধ-দূনীর্তি
  2. আইন-আদালত
  3. আর্ন্তজাতিক
  4. কৃষি ও অর্থনীতি
  5. খেলাধুলা
  6. চিকিৎসা
  7. জাতীয়
  8. দেশজুড়ে
  9. ধর্ম
  10. বিনোদন
  11. মতামত
  12. রাজনীতি
  13. লাইফস্টাইল
  14. শিক্ষা
  15. সম্পাদকীয়

জীবননগরের কেডিকে ইউনিয়নে একটি ইটভাটার ও নেই ট্রেড লাইসেন্স; রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার | JN7

Rasel Munna
February 7, 2021 9:22 pm
Link Copied!

এস এম নাসিম উদ্দিন: স্থানীয় সরকারের বাৎসরিক কর পরিশোধ না করেই দেদারছে চলছে ইটভাটার ব্যাবসা।  চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার কেডিকে ইউনিয়নের ৬টি ইট ভাটার একটিরও নেই ট্রেড লাইসেন্স। রোববার (৭ই ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সূত্রে খবর পেয়ে বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করতে কেডিকে ইউনিয়ন পরিষদে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, চলতি মৌসুমে একটি ইটভাটার মালিকও  করেনি ট্রেড লাইসেন্স। স্থানীয় সরকারের কর পরিশোধ না করেই চলছে ইট ভাটা মালিকদের রমরমা ব্যাবসা। এ বিষয়ে কেডিকে ইউপি সচিব মনিরুজ্জামান জানান, ২ বার নোটিশ করা সত্বেও ভাটা মালিকদের কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি। সর্বশেষ চলতি বছরের জানুয়ারি মাসের ৭ তারিখে পাঠানো নোটিশের রিসিভ কপিতে ৬টি ইট ভাটা মালিকদের স্বাক্ষর থাকলেও কর পরিশোধ করে ট্রেড লাইসেন্স করেননি কেউ। স্থানীয় সরকার বিভাগের ইউনিয়ন পরিষদ কর তফসিল ২০১৩ ও স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন সমবায় মন্ত্রালয়ের প্রজ্ঞাপন দেখে জানা যায়, মূলধন বা পরিশোধিত মূলধন ৪০ লাখের বেশি হলে সেক্ষেত্রে সর্বোচ্চ বাৎসরিক করের পরিমাণ হবে ৫০ হাজার টাকা। খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে, বেশিরভাগ ইট ভাটা মালিদের মূলধন ও সম্পদের পরিমাণ কোটি টাকার বেশি, কিন্তু ১০ হাজার টাকার বেশি কর দিতে নারাজ কেডিকে ইউনিয়নের ইটভাটা মালিকগণ।

অপরদিকে আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন এলাকায় ৪টি ইট ভাটার মালিকরা ২০ হাজার টাকা করে বাৎসরিক ইউনিয়ন পরিষদ কর পরিশোধ করেছেন মর্মে ইউপি সচিব হাসানুজ্জামান জানিয়েছেন। এ বিষয়ে কেডিকে ইউনিয়নের, পিয়াস বীক্স এর স্বত্বাধিকারী আসাদুজ্জামান আকুল, সরকার বীক্স এর বাপ্পি মিয়া, শেখ শাহ ব্রীক্স এর শামীম মিয়া, এ এম বি ব্রীক্স এর আরিফ মিয়াসহ একাধিক ভাটা মালিকের সাথে কথা বলে জানা গেছে ১০ হাজারের বেশি টাকা কর দেওয়া লাগলে, ইউনিয়ন পরিষদ কর পরিশোধ করে ট্রেড লাইসেন্স করবেন না মর্মে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এ ব্যাপারে জানার জন্য কেডিকে ইউপি চেয়ারম্যান খাইরুল বাশার শিপলু’র সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।