ঢাকাTuesday , 2 February 2021
  1. অপরাধ-দূনীর্তি
  2. আইন-আদালত
  3. আর্ন্তজাতিক
  4. কৃষি ও অর্থনীতি
  5. খেলাধুলা
  6. চিকিৎসা
  7. জাতীয়
  8. দেশজুড়ে
  9. ধর্ম
  10. বিনোদন
  11. মতামত
  12. রাজনীতি
  13. লাইফস্টাইল
  14. শিক্ষা
  15. সম্পাদকীয়

জীবননগরের মাধবপুর হতে ছেড়ে যাওয়া গুড়ভর্তি পিকআপ পথিমধ্যে ছিনতাই; র‌্যাবের হাতে আটক-২ | JN7

Rasel Munna
February 2, 2021 9:00 am
Link Copied!

এম.এ.আর.নয়নরাসেল হোসেন মুন্না।। চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার মাধবপুর হতে ছেড়ে যাওয়া গুড়ভর্তি পিকআপ পথিমধ্যে প্রতারকচক্রের দ্বারা ছিনতাই হওয়ার পর ঝিনাইদহ ক্যাম্পের র‌্যাবের তড়িৎ পদক্ষেপে ছিনতাই হওয়া ১২৭ ড্রামভর্তি ঝোল গুড় উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে৷ সেইসাথে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হয়েছে সাদ্দাম হোসেন (৩০) ও সুমন বিশ্বাস (৩২) নামের ছিনতাইকারী ও প্রতারক চক্রের দুই সদস্য। গ্রেফতারকৃত সাদ্দাম হোসেন ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ থানাধীন পাচকাউনিয়া গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে এবং সুমন বিশ্বাস যশোর সদর উপজেলার ছোটগোপালপুর গ্রামের তবিবার বিশ্বাসের ছেলে।

গত তশুক্রবার (২৯শে জানুয়ারি) বিকাল ৫টার সময় জীবননগর উপজেলার হাসাদাহ ইউনিয়নের মাধবপুর গ্রাম হতে গুড়ভর্তি পিকআপটি নোয়াখালীর হাতিয়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা আরম্ভ করলে পথিমধ্যে সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারী এবং প্রতারকচক্র পূর্বপরিকল্পতিভাবে গুড়ভর্তি পিকআপটি চালকের সহায়তায় ছিনতাই করে।

র‌্যাব জানায়, গুড় ব্যবসায়ী রবিউল ইসলাম (৪৫) জীবননগর উপজেলার হাসাদাহের মাধবপুর হতে ১২৭ ড্রামভর্তি ঝোল গুড় একটি পিকআপ এ লোড করে নোয়াখালীর হাতিয়ার উদ্দেশ্যে প্রেরণ করে। পথিমধ্যে চালকের সহায়তায় পিকআপটি ছিনতাই হয়। পরবর্তীতে ছিনতাইকারী ও প্রতারকচক্রটি নিজেদেরকে র‌্যাব পরিচয় দিয়ে গুড় ব্যবসায়ীকে প্রাণনাশের হুমকি দেয় এবং মোটা অংকের টাকা দাবী করে। গুড় ব্যবসায়ী থানায় জিডি করে বিষয়টি র‌্যাবকে জানায়। উক্ত অভিযোগের ভিত্তিতে সিপিসি-২, র‌্যাব-৬ ঝিনাইদহ ক্যাম্পের একটি চৌকস আভিযানিক দল তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার এবং গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার (১লা ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৪টার দিকে ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ছিনতাইকারী এবং প্রতারক চক্রের এক সদস্য সাদ্দাম হোসেনকে গ্রেফতার করে।

পরবর্তীতে তার দেওয়া তথ্যমতে বিকাল ৫টার সময় যশোর সদর উপজেলার ছোটগোপালপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে প্রতারকচক্রের অপর এক সদস্য সুমন বিশ্বাস নামের এক আসামিকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত সুমনের দখল হতে ছিনতাই হওয়া ১২৭ ড্রামভর্তি সর্বমোট ৫ হাজার ৫ শত ৮৮ কেজি ঝোল গুড় উদ্ধার করা হয়। যার আনুমানিক মূল্য ৩ লক্ষ ৮০ হাজার ৮ শত ৮৮ টাকা।

উদ্ধারকৃত আলামতসহ গ্রেফতারকৃত আসামিদের চুয়াডাঙ্গার জীবননগর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। এছাড়া গুড়পরিবহনকারী পিকআপ উদ্ধার এবং ছিনতাইকারী ও প্রতারকচক্রের অন্য সদস্যদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রেখেছে র‌্যাব। প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এসব তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

ড্রামভর্তি উদ্ধারকৃত ঝোলগুড় এবং র‌্যাবের মাঝে গ্রেফতারকৃত আসামিদ্বয়।